Ads

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ভোগড়া বাইপাসের পেয়ারাবাগান এলাকায় পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার পর নিহতের স্বামী পালিয়ে গেছেন। রবিবার সকালে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহত মুনশেফা আক্তার রংপুরের পীরগঞ্জ থানার শিবপুর এলাকার দুদু মিয়ার স্ত্রী। তারা ভোগড়া বাইপাসের পেয়ারাবাগান এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন।

মুনশেফার ভগ্নিপতি আশিক মিয়া জানান, স্বামী-স্ত্রী দুজনই ভোগড়া বাইপাস এলাকায় কাঁচামালের আড়তে দিনমজুরের কাজ করতেন। কয়েকদিন ধরে পারিবারিক নানা বিষয় নিয়ে দুজনের মধ্যে ঝগড়া বাধে। শুক্রবার সন্ধ্যায় মাগরিবের নামাজ পড়ার জন্য ওজু করতে যান মুনশেফা। ওজু করতে দেরি হওয়ায় দুজনের মধ্যে ফের ঝগড়া হয়। বিষয়টি রাতেই পারিবারিকভাবে মীমাংসা করা হয়।

পরে সবাই নিজ নিজ কক্ষে গিয়ে ঘুমিয়ে যান। রাতের কোনো এক সময় মুনশেফাকে হত্যার পর স্বামী পালিয়ে যায়।

রবিবার সকালে ঘর থেকে দুর্গন্ধ বের হলে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

বাসন থানার ওসি রফিকুল ইসলাম চৌধুরী জানান, নিহতের গলায় দাগ রয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, মুনশেফাকে শ্বাসরোধে হত্যার পর স্বামী পালিয়ে গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here